হোড়া কপাইল্লা

- মাস্টারমাইন্ড প্রিন্স মাহী

হেতে আঁরে বিয়া করি
আবার দিছে ছাড়ি,
এরুম হোড়া কইল্লার কলে
ঠুন্ডা হিচার বাড়ি।

কত কইলাম বাপ মায়ে’রে
বিয়া না দিবার লাই,
বিয়া বই না হাইলাম সুখ
না, হাইলাম এট্টু ঠাঁই।

জলদী বিয়া নইলে বেলে
চোলাই নিবো যগে বগে,
হেই ডরে আঁর বিয়া দিছে
এক আকাইম্মার লগে।

ভুইয়া বাড়ির ছোডো হোলা
নাম চেগাইছে প্রিন্স,
টো-টো করি ঘুরে হিন্দী
মারু-হাপ্পেন জিন্স।

কাম করেনা কাইজ করেনা
খালি বই খাতা লই ঘুরে,
হিরা আলা মোরগের লাইন
গাছ তলে বই যুরে।

কি জানি কি লেখে আর
বিড়ি টানে মনের সুখে,
হেই লেয়া যায় হুনা বেলে
মাইনষের মুখে মুখে।

হেতের লগে আঁর বিয়া দিছে
বুইজলাম না কি বুজি,
হইরের ঘরে খাইলাম শুধু
হারা বছর খুজি।

মধুর লগে বিয়া অইলে
অইতাম রানী শাহজাদী,
কইতোনা কেউ প্রিন্সের মত
কতায় কতায় হারামজাদী।

আঁর মতো রূপের মাইয়া
টোগাইলে কি আর হায়,
অনো দেইখলে বুড়িয়া বেডা
কানাই কানাই চায়।

হেতে আঁরে ছাড়ি-দি
ভাইংছে নিজের দিল,
হেই শোকে অন নিজের বুকে
মারে শুধু কিল।

হোড়া কইল্লা অইলে আর কি
যা অইবার তা অয়,
নইলে কি আর হেতের কতা
ঠোঁটের আগাত রয়?

আসলে যার লাই লইছি ঠুন্ডা হিছা
হেতে-তো না, আঁই আনাড়ি,
মনে চায় অন হিছা ঘুরাই
নিজের কলে মারি বাড়ি।

(মোট পড়েছেন 469 জন, আজ 1 জন)
শর্টলিংকঃ

মন্তব্য করুন