অশুভ প্রেতাত্মা

অভিশপ্ত মৃত্যুর বহুকাল পরে পরাজিত প্রেতাত্মার পূনর্জন্ম – সত্যের বিজয় অস্বীকার করে বদলে দিতে আসছে ইতিহাস !   অশুভ ক্ষমতার প্রলয়-তান্ডব ভয়াল অপশক্তির বিভীষিকা – মিথ্যাকে সর্বত্র ছড়িয়ে দিয়ে নেমে আসছে ঘোর অমানিশা !   সত্য ঢাকা পড়ে যাচ্ছে অন্ধকারে ধ্বংসের অপদেবতার আমন্ত্রনে – অমঙ্গল-অমাবস্যার পথ ধরে এগিয়ে আসছে অশুভ প্রেতাত্মা ! (মোট পড়েছেন 27 সম্পূর্ণ পড়ুন

বিবর্ণ পতাকা

আকাশে-বাতাসে অশুভ কানাকানি, আঁধার ঘনিয়ে অমঙ্গলের ধ্বনি।   বিবর্ণ পতাকা ! শকুনের উল্লাস ! সোনার বাংলা – অন্ধকারে গ্রাস।   ঘন কালো মেঘ আকাশের গায়, আঁধারের বন্দীরা মুক্তির অপেক্ষায়।   বিবর্ণ পতাকা ! মুক্তির পথ রুদ্ধ ! কোথায় ঐক্য ? কোথায় জনযুদ্ধ ? (মোট পড়েছেন 43 জন, আজ 1 জন)

রক্তাক্ত ইতিহাস

আজকের এই সবুজ পাহাড় রক্তাক্ত ইতিহাস বুকে নিয়ে- দাঁড়িয়ে আছে থানচি কিংবা আলীকদমের দুর্গম সীমান্তে।   একদা আক্রান্ত পাহাড়, জন্মভূমির অচেনা আচরণে; জুমের ফসল, জ্বলন্ত ঘর-বাড়ি- দখলদার শত্রুর বিচরণে।   পেছনে ভাইয়ের বুলেট-বিদ্ধ লাশ, সম্ভ্রম বাঁচাতে বোন আশ্রয় খোঁজে; সন্তানহারা বাবা-মা’র আহাজারি- মানবতা যেন নিরব দর্শক সাজে।   প্রতিহিংসার অনলে জ্বলন্ত দীঘিনালা কিংবা পানছড়ি, বুলেট-বেয়নেটে সম্পূর্ণ পড়ুন

আজব বধ্যভূমি

জেগে উঠেছে পরাজিত প্রেতাত্মার দল , লাশের স্তুপ আর রক্তের নদী পেরিয়ে ; আমার সোনার বাংলায় ।   নরপিশাচের চকচকে চাপাতি, রক্তাক্ত স্বাধীনতা ; হায়েনাদের অট্টহাসিতে ঢাকা পড়ে – মা-বোনের আর্তচিৎকার ।   কোথায় ভিয়েতনাম আন্দোলন, মতিউল-কাদের ? কোথায় মুক্তিযুদ্ধের অকুতোভয় গেরিলা বাহিনী ? কোথায় স্বাধীনতা ? কোথায় সমাজতন্ত্র ?   ক্ষত-বিক্ষত আকাশ, শ্মশানের নিরবতা সম্পূর্ণ পড়ুন

শোলাকিয়া ও গুলশান হামলায় প্রমাণিত আমাদের পুলিশ এখন অনেক পেশাদার

আমরা যে যখন যেভাবে পারি আমাদের পুলিশকে গালমন্দ করি, তাদের নিয়ে উল্টাপাল্টা কথা বলি সুযোগ পেলেই তাদের চৌদ্দগোষ্ঠী উদ্ধার করি। কিন্তু ১৯৭১ সালে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তান হানাদার বাহিনী পরিচালিত ইতিহাসের কলঙ্কজনক ‘অপারেশন সার্চলাইটেও’ প্রথম প্রতিরোধ যুদ্ধে সামিল হয়েছিল রাজারবাগের পুলিশ ব্যারাকের পুলিশ বাহিনী এবং সারাদেশের থানাগুলো বিদ্রোহ করেছিল পাক হানাদারদের বিরুদ্ধে। পুলিশ বাহিনীর সেই সম্পূর্ণ পড়ুন

বাংলাদেশের অর্থনীতিকে পঙ্গু করে দিতে এ জঙ্গি হামলা এতে আইএসআইয়ের সংশ্লিষ্টতার আলামত ষ্পষ্ট

Normal 0 false false false EN-US X-NONE X-NONE /* Style Definitions */ table.MsoNormalTable {mso-style-name:”Table Normal”; mso-tstyle-rowband-size:0; mso-tstyle-colband-size:0; mso-style-noshow:yes; mso-style-priority:99; mso-style-qformat:yes; mso-style-parent:””; mso-padding-alt:0in 5.4pt 0in 5.4pt; mso-para-margin-top:0in; mso-para-margin-right:0in; mso-para-margin-bottom:10.0pt; mso-para-margin-left:0in; line-height:115%; mso-pagination:widow-orphan; font-size:11.0pt; font-family:”Calibri”,”sans-serif”; mso-ascii-font-family:Calibri; mso-ascii-theme-font:minor-latin; mso-hansi-font-family:Calibri; mso-hansi-theme-font:minor-latin; mso-bidi-font-family:”Times New Roman”; mso-bidi-theme-font:minor-bidi;} মাহবুবুল আলম //   সজল চোখে দিয়েছি বিদায়, ভাই-বন্ধু তোমাদের ঘৃণার নরকে ঠাঁই যেন সম্পূর্ণ পড়ুন

নটর ডেম কলেজে ভর্তি সংক্রান্ত তথ্য

শুরুতেই বলে রাখি লেখাটার উদ্দেশ্য হল- যারা নটর ডেম কলেজে(বিজ্ঞান বিভাগে) ভর্তি পরীক্ষা দিতে যাবে তাদের সামান্য সাহায্য করা। এই সাধারণ পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে যেভাবে ব্যবসা শুরু হয়েছে সেটা বন্ধে ছোট একটা পদক্ষেপ বলতে পারেন। এই লেখা পড়ে একজন নটর ডেম কলেজে ভর্তি ইচ্ছুক ছাত্র বিনা মূল্যে সম্পূর্ণ ভর্তি প্রক্রিয়া জেনে যেতে পারবেন। এই লেখাটায় সম্পূর্ণ পড়ুন

শিশুশ্রম

১০ বছরের মেয়ে রিশি পথে ফুল বিক্রি করে।১দিন জাম এ পড়ার দরুন তার সাথে দেখা। তাকে জিগাসা করলে সে পড়ে  কিনা? সে উত্তর দিল ”আমি পইড়া কি করুম?কাজ কইরাই কুলাইতে ফারি না।”আমি বলি, “তুমার  আর ভাই বন নেই? সে বলে “আমার  ভাই হেলপারি করে।”আমি  বলি “তুমাদের তু এখন  পড়া লেখার বয়স “সে বলে,”আমরা পড়লে আমরা সম্পূর্ণ পড়ুন

জানেন দাদা, আমার ছেলের বাংলাটা ঠিক আসে না

ছেলে আমার খুব ‘সিরিয়াস’ কথায়-কথায় হাসে নাজানেন দাদা, আমার ছেলের, বাংলাটা ঠিক আসে না।ইংলিশে ও ‘রাইমস’ বলে‘ডিবেট’ করে, পড়াও চলেআমার ছেলে খুব ‘পজেটিভ’ অলীক স্বপ্নে ভাসে নাজানেন দাদা, আমার ছেলের, বাংলাটা ঠিক আসে না। ‘ইংলিশ’ ওর গুলে খাওয়া, ওটাই ‘ফাস্ট’ ল্যাঙ্গুয়েজহিন্দি সেকেন্ড, সত্যি বলছি, হিন্দিতে ওর দারুণ তেজ।কী লাভ বলুন বাংলা প’ড়ে?বিমান ছেড়ে ঠেলায় চড়ে?বেঙ্গলি সম্পূর্ণ পড়ুন

লাশকাটা ঘর

ঘরটার দরজায় পা দেওয়ার সেকেন্ডের মধ্যেই আমি বুঝতে পারলাম, এখানে আসার সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল! অবশ্য ইচ্ছে করলেই আবার বের হয়ে যেতে পারি; নাসের আর উপেন নিশ্চয়ই এখনো ব্রিজের উপর বসে আছে। কিন্তু ব্যাপারটা আমার জন্যে বিরাট লজ্জাজনক হবে। উভয়সঙ্কটে পড়ে গেছি! কী করা উচিৎ বুঝতে পারছি না। দরজার চৌকাঠের উপর দাঁড়িয়ে কিছুক্ষণ চিন্তা করে ঘরের সম্পূর্ণ পড়ুন