ডাক দিয়ে যাই নতুনের আহবানে

- কামরুল হাসান ইমন

বন্ধুরা কেমন আছেন সবাই?নিশ্চয়ই ভাল।আজ বহুল প্রত্যাশিত বাঙ্গালীর নতুন বছর বরণ করার ঠিক পূর্ব মুহূর্ত।ইতিমধ্যে আগামীকালের সুন্দর দিনটিকে সাধ্য অনুযায়ী উদযাপন ও বরণ করে নিতে আশা করি সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।সেই সাথে নতুনের গান গুন গুন সুরে চারপাশে ধ্বনিত হচ্ছে।বাংলার পথে পথে সাঁজ সাঁজ রব বিরাজ করছে।

আগামী কালের সব কিছুকে ঘিরে যেমন আনন্দের অন্ত নাই তেমনি এক শ্রেণীর মানুষের হিংসার শেষ নাই।তাদের ভাষ্যমতে নতুন বছরের এই আনন্দের দিন নাকি তারা প্রতিহত করার অঙ্গীকারও করেছে।যাই হোক যুগে যুগে নিন্দুকের দল পৃথিবীতে আসবে আর মানুষের কান্নার কারণ হবে এটাই স্বাভাবিক।তাই বলে দিন তো আর তাদের ভয়ে থেমে থাকে না,থাকে না কিছুই।

আমার আজকের এই লেখা কোন নিন্দুকের বিরুদ্ধে নয়।আমি শুধু একটি কথার জানান দিতে চাই সেই সব লোকদের যারা বাংলাদেশে বসবাস করে বাংলা মায়ের হাঁসির মুহূর্তগুলোকে কেঁড়ে নিতে চায়, “তারা কখনই বাংলাকে ভালবাসে নাই ভালবাসতে পারে না।তাদের মুখে সুন্দর সুন্দর কথার বুলি থাকলেও মনে মনে স্বদেশ বিরোধী।”

বাংলাদেশে বাস করে বাংলা মায়ের দেওয়া সকল সুবিধা ভোগ করে কেন হবেন সমাজের আস্তাকুড়ে? আসুন সব দ্বিধা- দ্বন্দ্ব ভুলে ধনী- গরীব এক হয়ে মিশে যাই বাংলা মায়ের সুখ দুঃখের সাথে।আগামী কালের আনন্দকে ভাগ করে নেই সবার সাথে।কে জানে হয়তো আগামীকালের এক হয়ে যাওয়া সবাইকে বেঁধে দিতে পারে এক সূতায়।গড়ে দিতে পারে বাংলাকে ভালবাসার নতুন সুযোগ। তাই আর দূরে দূরে নয় এক হয়ে এক সাথে গেঁয়ে উঠুন –“এসো হে বৈশাখ বাঙ্গালীর মনের কালিমা দূর করতে………”

ছবিঃ নতুন বছর ১৪২০ কে আহ্বান রত বাঙ্গালী ললনারা  (সংগৃহীত) ,কামরুল হাসান ইমন

(মোট পড়েছেন 524 জন, আজ 1 জন)
শর্টলিংকঃ

২টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন