কোনকাজে দক্ষতা ছাড়াই আয় করুন অনলাইন থেকে, পিটিসি ।

- বার্ণসিল

অনলাইনে আয়ের অন্য কোন উপায় যাদের জানা তাদের প্রবেশ সময়ের অপচয়।
আপনাদের বলি আপনি যদি কোন কাজ এ দক্ষ হয়ে থাকেন যেমন গ্রাফিক্স ডিজাইন, কোনপ্রগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ,এসইও, বা অন্য যেকোন ধরনের সফটওয়্যারে) যদি আপনার দক্ষতা থেকে থাকে তাহলে পিটিসি সাইটে কাজ করে নিজের মূল্যবান সময় নষ্ট করবেন না দয়া করে।

আর যারা অনলাইনে আড্ডামেরে সময় নষ্ট করেন বা যাদের ফ্রী সময় আছে কিন্ত কোন কাজ পারেন না তাহলে তাদেরকে বলছি শুনুন শুধুমাত্র আপনার যদি ধৈর্য থেকে থাকে তাহলেই আপনি অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন ইনশাল্লাহ। প্রতিমাসে ১০০ ডলার ইনকাম করার জন্য আপনাকে প্রতিদিন ৩০ মিনিট থেকে ১ ঘন্টা সময় ব্যায় করতে হতে পারে তবে আপনি কাজ শুরু করার প্রথম মাস থেকেই এত টাকা ইনকাম করতে পারবেন না। আপনাকে ধরে নিতে হবে যে প্রথম দুই মাস আপনার কোন ইনকাম হবেনা তাই ধৈর্যহারা না হয়ে কাজ করে যান নিরবে।আমাদের দেশে কাজের সাথে কাজের পারিশ্রমিকের কোন মিল নেই, মিল নেই ইনকাম এর সাথে খরচের। সবাই শুধু চিন্তা করে ইশ যদি ইনকামটা আর একটু বাড়ানো যেত তাহলে হয়ত আর একটু ভালো বাসাতে থাকা যেত। আর যারা ছাত্র তারা চিন্তা করে বাসা থেকে যদি আর একটু টাকা পয়সা বেশি দিত তাহলে হয়তো আরো একটু ভাল ভাবে চলতে পারতাম। তবে একটা কথা আপনাদের বলতে চাই পিটিসি কাজটাকে কেউ কারো মেইন কাজ হিসাবে নিবেন না দয়া করে। প্রতিমাসে এক্সট্রা একটু ইনকাম এর জন্য যে কাজ সেটা যেন এক্সট্রা কাজ হিসাবেই থাকে। পিটিসি সাইটে কাজ করে বাংলাদেশের অনেকেই সফলতা পেয়েছেন।যারা পিটিসি কাজ সম্পর্ক জানেন তাদের জন্য এই পোষ্টনয় যারা নতুন তাদের জন্যই আমার এই খুদ্র প্রয়াস। ইন্টারনেটে অনেক পিটিসি সাইট আছে যার বেশির ভাগই ভুয়া বা পেমেন্ট করেনা। তাই সবার কাছে অনুরোধ থাকবে কোন সাইট দেখেই কোন খোজ খবর না নিয়ে কাজ করা শুরু করবেন না যেন। যে সাইটে কাজ করবেন তার সম্পর্কে গুগলে সার্চ করুন সাইটি সর্ম্পকে বিস্তারিত জানুন। যদি সাইটি সম্পর্কে স্ক্যাম হিসেবে কোন তথ্য পান তাহলে ভুলেও সেই সাইটে কাজ করে সময় নষ্ট করবেন না। বাংলাদেশে যেমন ডুল্যান্সার,স্কাইল্যান্সার টাইপ কোম্পানী ছিল।
পিটিসি সাইটের জানা অজানা তথ্য !!!
অনলাইন আয়ের সবচেয়ে আলোচিত এবং সহজ,পিটিসি সাইট।
অনলাইনে আয় করা টাকা বাংলাদেশে কিভাবে আনবেন,পে’জা ।।
শুধু কাজ করলেই হবেনা কাজ করে সেই টাকা হাতেও আনতে হবে। প্রায় সব পিটিসি সাইট পে’জা সাপোর্ট করে তাই আপনার যদি পে’জা একাউন্ট না থেকে থাকে তাহলে এখান থেকে পে’জা একাউন্ট করে নিন। যেহেতু বেশিরভাগ পিটিসি সাইট ভুয়া তাই নতুনদের জন্য খোজ খবর করে এমন কিছু পিটিসি সাইটের ঠিকানা আপনাদের দিব যেসব সাইট রেগুলার তার ওয়ার্কারদের পে করে। আশাকরি নিচের সাইট গুলোতে কাজ করলে আপনারা প্রতারিত হবেন না।

যতো পিটিসি সাইট এখন সারা দুনিয়াতে আছে তাদের মধ্যে সেরা পিটিসি সাইটির নাম নিওবাক্স,ক্লিকসেন্স,বাক্সপি,পিটিসিসলূশন,প্রোবাক্স ইত্যাদি । সাইটগুলোর পেমেন্ট সিসটেম যেমন ভাল তেমনি ভাল সাইটির ফোরাম,চ্যাটিং। নিওবাক্স,ক্লিকসেন্স,বাক্সপি ফোরাম খুবই এ্যাকটিভ। ইউজাররা যেকোন ধরনের সমস্যায় পরলে ফোরামে পোষ্টদিলে অতি দ্রততম সময় এর মধ্যে ফোরাম এ্যাডমিন ও অভিঙ্গ ইউজাররা তার সমাধান দিয়ে দেয়।
আমি আপনাদের সাথে কিছু পিটিসি সাইট শেয়ার করব,এবং প্রতিটা সাইটের বিস্তারিত দেয়ার ব্যবস্হা করব।
তাদের সাইটে গিয়ে নাম লেখাতে হবে।[অবশ্যই সকল তথ্য একটি ডায়েরীতে লিখে রাখবেন,যেমন- ইমেইল,ইউসারনেম,পাসওয়ার্ড(প্রতিটা সাইটের পাসওয়ার্ড আলাদা রাখার চেষ্টা করবেন)]

পিটিসি সাইটের রাজাধিরাজ

নিওবাক্স অনলাইনে আছে ০১-০৪-২০০৮ সাল থেকে এবং নিয়মিত পেমেন্ট দিচ্ছে। ৬ বছরেরও বেশী সময় ধরে আছে।ডলার উইথড্র দেয়ার সাথে সাথে আপনার পে’জা এ্যাকাউন্টে জমা হবে।

অনলাইনে আছে ২০০৭ সাল থেকে।

                                                                     
ক্লিকসেন্স অনলাইনে আছে ০১-০২-২০০৭ সাল থেকে এবং নিয়মিত পেমেন্ট দিচ্ছে।

রেন্টেড রেফারেল নিয়ে আয়ের সুযোগ রয়েছে। 

                                                               মেম্বারশীপ আপগ্রেড করলে ভাল আয়ের সুবিধা রয়েছে।


সিলভারক্লিক্স হল গোল্ডেন গ্রুপরে কোম্পানী,যার আরও চারটি সাইট রয়েছে-
Goldenclix, Adzpot, Clixdo and Balkanikaclix

                                                 

গোল্ডেনক্লিক্স গোল্ডেন গ্রুপ লি.কোম্পানী,যার আরও চারটি সাইট রয়েছে-Goldenclix, Adzpot, Clixdo and Balkanikaclix

বাক্সপি অনলাইনে আছে ২০০৮ সাল থেকে।

          PaidVerts
এটি my traffic-value এর একটি শাখা আর my traffic-value ৩ বছর যাবত অনলাইনে পে করে আসছে একমাত্র এই সাইটের রয়েছে সর্বোচ্চ পেমেন্ট সিস্টেম।যেমনঃ paypal,payza,egopay,STP,western union money transfer and Bankwire.

 

স্ক্যাম পিটিসি সাইট:
Clicksia,Incentria
আপনার পিটিসি থেকে আয় কেমন হতে পারে ?


 সব পিটিসি সাইটের আয় খুবই কম। যা দিয়ে আপনি মূলত নেট বিল এবং পরবর্তীতে যখন আপনি বুঝতে পারবেন রেফারেল কিভাবে ভাড়া নিতে হয়, ডাইরেক্ট রেফারেল পাওয় এবং মেম্বারশীপ আপগ্রেড করলে কি সুবিধা। আপনি পিটিসি সাইটে ভাল আয় করতে হলে ৩-৬ মাস সময় দিতে হবে। প্রথম দিকে আপনার আয় হবে খুবই কম,আপনার মনে হতে পারে এর চেয়ে ফার্মগেটের ভিক্ষুকরা এর চেয়ে বেশী আয় করে।

বি.দ্র. তারপরও  পিটিসি সাইট নিয়ে বাংলা,ইংরেজী,চাইনিজ,হিন্দি তে এত এত ব্লগ কেন কেন ?

তাহলে বুঝুন কিছু না কিছু রয়েছে পিটিসি তে।

পিটিসি সাইটের আয়ের টাকা কিভাবে তুলব ?
– বাংলাদেশ পে’জা সাপোর্ট করে। পে’জার মাধ্যমে আপনি প্রায় ব্যাংকেই টাকা তুলতে পারবেন। আমি ডাচ-বাংলা ব্যাংক থেকে ২৪০ টাকা ফি দিয়ে টাকা উওোলন করি।আর বেশীরভাগ পিটিসি সাইট পে’জা সাপোর্ট করে। আর ২/১ সাইট পেপাল সাপোর্ট করে দেখুন -বাংলাদেশ থেকে পেপ্যাল ভেরিফাইডের উপায়।



পিটিসি তে যে টাকা পাওয় যায় তার প্রমাণ কি?
আপনি প্রতিটিা ভাল এবং পুরনো পিটিসি সাইটের ফোরামে দেখুন প্রতিদিন যারা ডলার তুলছে তাদের পেমেন্ট প্রুফ সহ তাদের সফলতার কথা শেয়ার করছে।
যেমন-নিওবাক্স,প্রোবাক্স,ক্লিকসেন্স,ক্লিকসিয়া,ইনসেনটেরিয়া ইত্যাদি।



পিটিসি সাইটের ডাইরেক্ট রেফারেল,রেন্টেড,পারচেজ রেফারেল কি?
ডাইরেক্ট রেফারেল: আপনি আমার লিংক থেকে সাইন আপ করলে আপনি আমার ডাইরক্টে রেফারেল।
রেন্টেড রেফারেল: পিটিসি সাইট সরাসরি পাওয়া রেফারেল ভাড়ায় খাটায়।
পারচেজ রেফারেল: অনেক পিটিস সাইট আছে যারা রেফারেল বেচে থাকে,যেমন – পিটিসি সলূশন।


আমার রেফারেল হলে আপনার কি লাভ ?

আপনি যদি একটিভ থাকেন এবং বিভিন্ন উপায়ে আয় করতে পারেন তবে আপনার রেফারেল লিংক প্রমোট করার চেষ্টা করা হবে।

আমার রেফারেল না হয়ে গুগল থেকে সার্চ করে বা সরাসরি তাদের সাইটে এ্যাকাউন্ট করলে আপনার লাভ?

কিছুই না। সাইট আপনাকে বিভিন্নজনের কাছে ভাড়া খাটাবে সাইটের লাভ বা যার রেফারেল হয়ে জয়েন করেছেন তার লাভ। 
কিভাবে আপনি রেফারেল ভাড়া নিয়ে ভাল আয় করতে পারবেন?



পিটিসি সাইট মূলত কাদের জন্য?

যারা একবারেই অলস।

– অনলাইনে কোন কাজ একেবারেই জানা নেই কিন্তু টাকা আয় করতে চান।

– গৃহিণী, অক্ষম ব্যক্তি ।

– শুধু শুধু যারা ফেসবুকে বা অন্যান্য সাইটে অনর্থক সময় ব্যয় করে।

পিটিসি সাইট কাদের জন্য নয়

– যারা অতি তাড়াতাড়ি টাকা কামাইতে চায়।

– অনলাইনে অন্যান্য কাজের দক্ষতা আছে বা শেখার আগ্রহ এবং সুযোগ রয়েছে।

সতর্কতা :  পিটিসি সাইটে টাকা বিনিয়োগ (বিশেষ করে – মেম্বারশীপ আপগ্রেড) করার আগে ভাল করে গুগলিং করুন।বিভিন্ন ফোরাম,ব্লগে একটিভ থাকুন।



আপনাদের মতামত এই পোস্টকে সার্থক করবে। ধন্যবাদ।

(মোট পড়েছেন 2,363 জন, আজ 1 জন)
শর্টলিংকঃ

৩টি মন্তব্য

  1. কোন জামেলা ছাড়া নিচের লিংকে ক্লিক করে কাজ করুন। এটি একটি নতুন পিটিসি সাইট!!! বর্তমানে 5000 উপরে সদস্য রয়েছে। জয়েন নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

    http://adf.ly/1M7q2j

    প্রতিদিনের এড দেখার পর টাকা তুলা যায়!!!

মন্তব্য করুন