শিশুশ্রম

- Tanjim Tanni

১০ বছরের মেয়ে রিশি পথে ফুল বিক্রি করে।১দিন জাম এ পড়ার দরুন তার সাথে দেখা।

তাকে জিগাসা করলে সে পড়ে  কিনা? সে উত্তর দিল ”আমি পইড়া কি করুম?কাজ কইরাই কুলাইতে ফারি না।”আমি বলি, “তুমার  আর ভাই বন নেই? সে বলে “আমার  ভাই হেলপারি করে।”আমি  বলি “তুমাদের তু এখন  পড়া লেখার বয়স “সে বলে,”আমরা পড়লে আমরা ভাত খাইবার পারুম না”,মালিকে বেতন কাইটা  লইব।১দিন কাম না করতে আইলে আমগো  সবাইরে মারে।”এখন যদি  হেয়ে দেহে আমি আপ্নের লগে কথা কইতাছি তাইলে হেয়ে আম্রে তু  মারবই হের লগে আমার ভাইরেও মারবে।”আর আপনি যে লেহাপরার কতা কইছেন সেটা  শুধু ধনী  দের “

আমি তাকে বুঝানোর জন্ন চেষ্টা  করলাম কিন্তু  সে কিসুতেই বুঝতে চাইল না।বরঞ্চ সে আরু ভয়ে ছিল।

আমাদের শহর এ রিশি ও তার ভাইয়ের মতন  অনেক এ আছে যারা এসব  অতাচার শিকার হচ্চে।

এটা যদি ও গল্প কিন্তু  বাস্তব এর ভিত্তি তে আমাদের এগিয়ে  আসতে হবে তবেই সফলতা আসবে।

সকল শিশু রা যেন পড়ার সুবিধা পায়।তাদেরকে কখনো  তাদের সামথের বাইরে কাজ দেয়া যাবে না। 

ভুল হলে মাফ করে দিয়েন।

(মোট পড়েছেন 127 জন, আজ 1 জন)
শর্টলিংকঃ

৩টি মন্তব্য

  1. খুব সত্যি কথা বলেছেন। এদেরকে দেখার কেউ নেই। অনাহারে-অনাদরে এরা কুপথে চলে যায়। 🙁

  2. সরকার কিংবা কোনো প্রতিষ্ঠানের অপেক্ষায় না থেকে প্রত্যেকের উচিৎ ব্যক্তিগত পর্যায়ে যতদূর সম্ভব চেষ্টা করা।

    মুক্তকণ্ঠে স্বাগতম Tanni -{@

মন্তব্য করুন